স্বাস্থ্য, ত্বক ও চুল এর ই টিপস

ই টিপস-১
নিয়মিত হাঁটার অভ্যাস করুন। আশেপাশের স্বল্প দূরত্বে ভ্রমনের ক্ষেত্রে পায়ে হেঁটে চলাচল করার চেষ্টা করুন। তবে হাঁটার জন্য হাঁটা নয়, দ্রুত হাঁটার চেষ্টা করুন। এর ফলে শরীরের অতিরিক্ত ক্যালরি বা চর্বি বার্ন হয়ে শরীর থেকে বের হয়ে যায় ও ওজন কমে আসে।

ই টিপস-২
** ঠোটেঁ কালো ছোপ পড়লে কাঁচা দুধে তুলো ভিজিয়ে ঠোটেঁ মুছবেন। এটি নিয়মিত করলে ঠোটেঁর কালো দাগ উঠে যাবে।
** নিঃশ্বাসের দুগন্ধ থেকে মুক্তি পেতে নিয়মিত দুই কোয়া করে কমলালেবু খান। দুই মাস পর এ সমস্য থাকবেনা।
** হাড়িঁ-বাসন ধোয়ার পরে হাত খুব রুক্ষ হয়ে যায়। এজন্য বাসন মাজার পরে দুধে কয়েক ফোঁটা লেবু মিশিয়ে হাতে লাগান। এতে আপনার হাত মোলায়েম হবে।
**অতিরক্ত শুষ্কতা থেকে মুক্তি পেতে মধু, দুধ ও বেসনের পেষ্ট মুখে লাগান নিয়মিত। এতে ত্বকের বলিরেখা ও দূর হয়ে যাবে।
** শীতের শুষ্ক ঠোঁটে যেমন চামড়া ওঠে, আপনার ঠোঁট তেমন হয়ে থাকলে লেবুই ভরসা। রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে লেবুর রস ঠোঁটে দিয়ে ঘুমিয়ে যান। এতে আপনার অধর হবে স্ফীত, কোমল ও মসৃণ।
** চুলে তেল দিতে হয়। কিন্তু শ্যাম্পু করার পরও তাতে তেল চিটচিটে ভাব থাকতে পারে। এ ক্ষেত্রে লেবুর রস বিস্ময়কার কাজ দেয়। লেবুর রসে অ্যাসট্রিনজেন্ট রয়েছে, যা তেলতেলে অংশ শুষে নেয়। চুল হয় ঝরঝরে।

ই টিপস-৩
যাদের চুল পড়ার পরিমাণ বেশী তাদের জন্য একটাই পরামর্শ তা হল ভেজা চুল আঁচড়াবেন না। ভেজা অবস্থায় চুল ভীষণ দুর্বল থাকে আর অল্প একটু টান পড়লেই চুল গোঁড়া থেকে উঠে আসে। তাই চুল আগে ভালভাবে শুকিয়ে তারপর আঁচড়ান। আর চেষ্টা করুন বড় দাঁতের চিরুনি ব্যবহার করা। চুল পড়ার অন্যতম কারণ হতে পারে খুশকি। আপনার নিয়মিত চুল পরিষ্কার না করার বাজে অভ্যাস/ নিয়মিত চুল না ধুলে মাথায় ময়লা জমে খুশকি হয়, এই খুশকি চুলের ক্ষতির পাশাপাশি মুখের ব্রণসহ শরীরের আরও অনেক রোগের সৃষ্টি করতে পারে। তাই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব মাথা থেকে খুশকি দূর করুন।

Share this post for your friend (সবার জন্য এই লিংকটি শেয়ার করুন)

PinIt
শুধু পাঠক হিসাবে নয় আমরা আপনাকে চাই একজন শিক্ষক ও লেখক হিসাবে। প্রয়োজনীয় ছবি সহ আমাদেরকে লিখুন ইমেইলে- etipsbdinfo@gmail.com