নকল স্যামসাং ফোন চেনার উপায়

স্যামসাং স্মার্টফোন বর্তমানে একটি জনপ্রিয় ব্র্যান্ড, আর এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে বর্তমানে বহু অসাধু ব্যবসায়ী বিভিন্নভাবে
অফার দিয়ে সাধারন মানুষকে বোকা বানিয়ে নকল চায়না স্যামসাং স্মার্টফোন দিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছে টাকা।  বিভিন্ন বাজার/শপিং মল
এবং অনলাইন কেনাকাটায় দেদারছে বিক্রি হচ্ছে স্যামসাংয়ের নকল স্মার্টফোন। সহজ সরল মানুষ প্রতিনিয়ত প্রতারিত হচ্ছে এ সব
নকল ফোন কিনে। কিছু টাকা সাশ্রয় করতে গিয়ে, একটা নকল চায়না ফোন কিনছে। তবে আপনি একটু সাবধান আর কিছু বুদ্ধি
খাটিয়ে এ থেকে রেহাই পেতে পারেন, যেমন-
* নকল স্যামসাং ফোনের পর্দার চারপাশে একটি কালো আকৃতির খালি অংশ থাকে।
* আসল স্মার্টফোনের হোম বাটনটি পর্দার নিচে খুব কাছাকাছি থাকবে। নকলগুলোতে একটু নিচে থাকে, যা ভাল করে খেয়াল না
করলে বোঝা যায় না।
* নকল ফোনে স্যামসাংয়ের লোগোতে নখ বা অন্য কিছু দিয়ে আঁচড় কাটলে সেটি উঠে যায়, আর লোগোটাও মসৃণ নয়।
* ওপরের পদ্ধতিগুলো প্রয়োগ করেও যদি বুঝতে না পারেন যে সেটি আসল না নকল ফোন সে ক্ষেত্রে ‘এলসিডি টেস্ট’ করে নিতে
পারেন। ফোনটিতে *#০*# চাপুন। ফোন আসল হলে সঙ্গে সঙ্গে পর্দায় এলসিডি টেস্ট দেখা যাবে। নকল সেটে এটি কখনোই আসবে
না।
* আসল ফোনে *#১২৩৪# চাপলে ভার্সন এপি, সিপি ও সিএসসি সিরিয়াল নম্বর, *#০ *# চাপলে জেনারেল টেস্ট মোড এবং *#
০২২৮# দিয়ে ব্যাটারি স্ট্যাটাস দেখা যাবে। নকল ফোনে এসব ‘কোড’ কাজ করে না।
* বর্তমানের কিছু হুজুগের অনলাইন শপ সাইট থেকে যেকোনো দামী স্মার্টফোন না কিনা ভাল। চেষ্টা করবেন অনুমোদিত ডিলার এর কাছ থেকে দামী যেকোনো ফোন কিনতে।

Share this post for your friend (সবার জন্য এই লিংকটি শেয়ার করুন)

PinIt
শুধু পাঠক হিসাবে নয় আমরা আপনাকে চাই একজন শিক্ষক ও লেখক হিসাবে। প্রয়োজনীয় ছবি সহ আমাদেরকে লিখুন ইমেইলে- etipsbdinfo@gmail.com